দূর্ঘটনার শিকার কেআর নাঙ্গালা ১০৪ সাবমেরিনের ক্রুদের পূর্বের ফটোসেশান।

0
149

আজ আনুষ্ঠানিকভাবে সাবমেরিনটি from submiss to subsunk ঘোষণা করেছে সেদেশের নেভী চীফ। দুর্ঘটনাস্থলের ১০ কিঃমি জুড়ে সাবমেরিনটির ধ্বংসাবশেষের বেশ কিছু চিহ্ন পায় তারা, যেগুলোর মধ্যে টর্পেডো টিউবের একাংশ,গ্রিজ ক্যান,জায়নামাজ রয়েছে। তিনি নিশ্চিত করে বলেন সাবমেরিনটি পানির অত্যাধিক চাপের কারণে একেবারে ভেঙ্গে যাওয়ায় এসব ধ্বংসাবশেষ উপরে ভেসে আসা শুরু করেছে।পানির ৮৫০ মিটার নিচ থেকে সাবমেরিনটি উদ্ধার করা যাবে কিনা তা নিয়েও সংশয় রয়েছে। এর আগে অস্ট্রেলিয়ান নেভীর সাবমেরিন দূর্ঘটনায়ও মৃতদেহ উদ্ধার করতে পারেনি তারা। প্রায় ১ বছর পর কিছু যন্ত্রাংশ উদ্ধার করেছিল মাত্র। সেসময় ৪৪ জন ক্রু সাগরের গভীরে হারিয়ে যায়,তাদের পরিবার মৃতদেহটি পর্যন্ত পায়নি। বাস্তবতা হল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে প্রযুক্তির শিখরে থাকা স্বত্তেও যে চারটি সাবমেরিন দূর্ঘটনা ঘটেছে তার কোনটিরই ক্রুদের বাঁচানো যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here